বিবস্ত্র সভ্যতা

সভ্যতার কাফনে অসভ্যতাকে করি আড়াল

বর্বরতার কালিমায় কলঙ্ককিত করি পুরা জাতিকে

কি আজব প্রহসনের এক চরন গায় দিবানিশি

সারে জাহা-সে আইচ্ছা হিন্দুস্থান হামারা

সভ্যতাকে বলৎকারে পাই বর্বরাচিত পৈচাসিক সুখ

প্রফুল্ল চিত্তের রেখা ফুঠে উঠে কিছু জানোয়ারের মুখে

দারিদ্রতার কষাগাতে, বিশ্বাস করো শুধু দারিদ্রতার কষাগাতে

সর্বগ্রাসী ক্ষুদা আমার শুনে না ন্যায়-অন্যায় বাণী

অভাব নামক জন্তুটাকে তাড়াতে গিয়ে বন্ধি আমি

সভ্যতার মুখোশ ঢাকা কতিপয় বর্বর জন্তুর জালে

বর্বর মধ্যযুগ খুজে পাই আমি এই সভ্যযুগে

সারা বিশ্বকে জানিয়ে দিলে আমায় বিবস্ত্র করে

এখনো তাজা ফেলানীর টকটকে লাল রক্ত মাখা জমিন

তোর চোখে কি পড়ে তা, তরতাজা ফেলানি বুলেট বিব্ধ ঘাঁ?

জানিস না ওরা আমাদের দাদা রাখি তাই সদাই তুষ্ট

চোরের দল, অন্যায়ের বিচারে তুই হস কেন রুষ্ট!